কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় অতর্কিত হামলায় দুই যুবক আহত হয়েছে। গত ২৯ জুলাই বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার চান্দলা টানা ব্রীজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও আহতদের সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার দক্ষিণ চান্দলা টানা ব্রীজ এলাকায় প্রতিপক্ষের লোকজন অতর্কিত হামলা চালিয়ে সোহাগ (২৪) ও জুয়েল রানা (১৯) নামের দুই যুবককে আহত করে।

আহত সোহাগ জানান, চান্দলা বাজারে মোটরসাইকেলে অটোরিকশা লেগে গেলে মোটরসাইকেল আরোহীরা অটোরিকশা চালককে মারধর করে। তখন অটোরিকশায় আরোহী যাত্রীরা এগিয়ে গেলে তাদেরকেও মারধর করে। স্থানীয় লোকজন সেখানে উপস্থিত হয়ে ঘটনার মীমাংসা করে দেয়। পরে মোটরসাইকেল আরোহী চান্দলা রামচন্দ্রপুর গ্রামের নান্নু খানের ছেলে রাব্বু ও তার ভাই ইমান, এমরান সহ আরো কয়েকজন মিলে চান্দলা টানা ব্রীজ এলাকায় আবারও অটোরিকশার যাত্রীদের ওপর হামলা চালায়। এসময় তাদের হামলায় উপজেলার চান্দলা চারিপাড়া গ্রামের মোছলেম মিয়ার ছেলে সোহাগ (২৪) ও আলী আক্কাসের ছেলে জুয়েল রানা (১৯) আহত হয়। পরে এলাকাবাসী ও আহতদের স্বজনরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

এসময় উপস্থিত লোকজন আহতদের ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতরা বর্তমানে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে।

এ ব্যাপারে নান্নু খানের ছেলে হামলাকারীর ভাই জাকির হোসেন মেম্বারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি এ বিষয়ে মন্তব্য করতে অনীহা প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: