কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বাসভবন দীর্ঘ প্রায় ৬ বছর যাবৎ পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে রয়েছে। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর জন্য বরাদ্ধকৃত বাসভবন রয়েছে। কিন্তু দীর্ঘ প্রায় ৬ বছর যাবৎ এটি পরিত্যক্ত অবস্থায় অবহেলিতভাবে পড়ে রয়েছে। ভাঙাচুরা হয়ে পড়ে রয়েছে জানালা দরজা। নেই বিদ্যুতিক আলো। অনেক বছর যাবৎ পরিত্যক্ত হবার সুযোগে এটি মাদকসেবীদের জন্য সহজ জায়গা হয়েছে। দিনের বেলা যেরকম থাকুক না কেনো রাতের আধার নামলেই সেখানে মাদকসেবীদের আনাগোনা চলে। রয়েছে আবার ডাকাতির ভয়। এতে করে সেখানে বসবাসরত লোকজন অনেক আতঙ্কে থাকে। আবার সেখানে চুরির ভয় থাকে সবচেয়ে বেশি।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘ অনেক বছর যাবৎ এটি পরিত্যক্তভাবে ভবনটি পড়ে থাকায় এর আস্তর এবং রডগুলো বেরিয়ে এসেছে। বিল্ডিং এর রং উঠে কালার বদলে গেছে এবং ভবনটিতে গাছ পেচিয়ে গাছ বড় হয়ে আছে। রাতের বেলায় এটি ভুতুড়ে বাড়ি হয়ে থাকে। উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে ভবনটি সাব রেজিষ্টার অফিসের সাথে অবস্থিত।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, আমি এই উপজেলায় আসার আগেই ভবনটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে থাকে। আমি দেড় বছর আগে ভবনটি মেরামত করার জন্য উধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট লিখিত আবেদন করি।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুহাম্মদ আবু জাহের বলেন, আমি গত দুই মাস পূর্বে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে যোগাযোগ করেছি। তিনি আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন অচিরেই ভবনটি নির্মান করে দিবেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: