খালে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের নাগাইশ গ্রামে ২ গ্রুপের সংঘর্ষে ২০ টি বাড়ি ঘর ভাংচুর সহ ১০ জন আহত হয়েছে৷ এলাকা বাসী সুত্র জানা যায়, সোমবার বিকালে দঃ নাগাইশ এলাকার মিন্টু মিয়া তার বাড়ির পাশের খাল থেকে মাছ ধরছিল৷

ঐ সময় একই এলাকার মোঃ হোসেন মিয়া বাধা দিয়ে কদিন পরে মাছ ধরতে বললে উভয়ের মধ্যে কথা কাটা কাটির এক পর্যায়ে লিটন মিয়া হোসেনকে ধারালো ছুড়ি দিয়ে আঘাত করলে হোসেনের ভাতিজা শরীফ চাচাকে বাচাতে গিয়ে লিটনের ছুরির আঘাতে আহত হয়৷ এঘটনাকে কেন্দ্র থেকে সোমবার রাতে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়৷ পরে রাতে ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে৷ ওই ঘটনার জের ধরে দক্ষিণ নাগাইশ এলাকায় দুটি গ্রুপ হয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। দুই দিনের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় এ পর্যন্ত বহু বাড়িতে লুট-পাটসহ প্রায় ২০ বাড়ি ঘর ভাংচুর করে উভয় গ্রুপের লোকজন৷ এখন পর্যন্ত ১০ জন আহত হবার খবর পাওয়া গেছে৷ মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত ঘটনায় এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

পুলিশের সার্কেল এ এস পি মোঃ আমিনুল্লাহ ব্রাহ্মণপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী নাজমুল হকসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। আহতরা বর্তমানে ব্রাহ্মণপাড়া সরকারি হাসপাতাল এবং কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে৷

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: