ব্রাহ্মণপাড়া প্রতিনিধিঃ এক সৌদি প্রবাসী রাত ১২ টায় দোকান থেকে হেটে বাড়ী যাবার সময় সন্ত্রাসীদের হামলায় মারাত্মকভাবে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বেজুরা গ্রামে।

আহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বেজুরা গ্রামের সৌদি প্রবাসী ২ সন্তানের জনক বেজুরা গ্রামের মৃত আবদুস সোবানের ছেলে মোঃ মোবারক হোসেন (৩০) গত ১৫/২০ দিন পূর্বে গ্রামের বাড়িতে আসে। গত মঙ্গলবার রাত ১২ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনের দোকানে বন্ধুদের সাথে আড্ডা শেষ করে পায়ে হেটে বাড়ীতে যাবার সময় বাড়ীর কাছে শাসনখোলা বেজুরা-দুলালপুর পাঁকা সড়কে পেছন থেকে একটি সিএনজি অটোরিক্সায় আসা ৪ জন যুবক গাড়ী থেকে নেমে কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই তাকে চাপাতি দিয়ে তার দুই হাত, দুই পা, বুকের এক পাশেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। কিছুক্ষনের মধ্যে দুলালপুর থেকে আসা এক অটোচালক তাকে উদ্ধার করে প্রথমে তাকে ব্রাহ্মণপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে কুমিল্লা কুচাইতলী হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৪৭টি সেলাই করা হয় বলে তার ভাই জাকির জানায়। বর্তমানে সে ব্রাহ্মণপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে।

আহত প্রবাসী মোবারক জানায়, কয়েকদিন পূর্বে দুলালপুর বাজারে দুই ছিনতাইকারী তার কাছ থেকে বেশ কিছু রিয়েল ও ইউরো, মোবাইলসহ তার স্ত্রীর স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়েছিল। এ ব্যাপারে দুজনকে অভিযুক্ত করে সে থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছিল। তার ধারনা তারাই তার উপর হামলা করেছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: