কুমিল্লার মুরাদনগরে দাফনের ৯ মাস পর কবর থেকে শাহিনুর আক্তার (২৫) নামের এক গৃহবধূর লাশ উত্তোলন করেছে পুলিশ। নিহত শাহিনুর উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের দক্ষিণ ত্রিশ গ্রামের এনামুল হকের স্ত্রী ও নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামের আলী আজম খাঁনের মেয়ে।

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিনের উপস্থিতিতে দক্ষিণ ত্রিশ কবরস্থান থেকে লাশ উত্তোলন করেন মুরাদনগর থানা পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও মুরাদনগর থানার উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত ৯ জানুয়ারি শাহিনুর তার স্বামীর বাড়িতে মৃত্যুবরণ করে। সে সময় তার স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে সর্বসম্মতিক্রমে তার লাশ দাফন করা হয়। এ ঘটনার দেড় মাস পর শাহিনুরকে শশুর বাড়ির লোকজন হত্যা করেছে বলে অভিযোগ আনেন ওই গৃহবধূর পরিবারের লোকজন। পরে বড় ভাই মামুন খাঁন তার বোনের স্বামী, শশুর ও শাশুড়িসহ ৭ জনকে আসামী করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার প্রেক্ষিতে কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সাইদুল আরেফিন লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন।

মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সাদেকুর রহমান জানান, আদালতের নির্দেশনায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিনের উপস্থিতিতে নিহত শাহিনুর আক্তারের লাশ কবর থেকে তুলে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: