মুরাদনগর

মুরাদনগর প্রতিনিধিঃ কোম্পানীগঞ্জ-নবীনগর আঞ্চলিক মহাসড়ক কয়েক কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করেন গত ক মাস পূর্বে। মহাসড়কের রাজাচাপিতলা দরবার ভূইয়ার বাড়ীর পার্শ্বে সড়ক খুড়ে ড্রেজার পাইপ চাপিতলা পশ্চিম বিলে একটি জমিতে বসিয়ে বালু ব্যবসা করে আসছিল ব্যবসায়ীরা। সরকারের শত কোটি টাকা ব্যয়ের রাস্তা খুড়ার অপরাধে গতকাল (০২ অক্টোবর) দুপুরে চাপিতলা ইউনিয়নের চাপিতলা ইউপি’র সদস্য টুটুল ও খাপুরা গ্রামের মোশাররফ পারভেজ ও টনকি ইউনিয়নের বৈলাবাড়ী ৪টি ড্রেজার মিশিন ও ড্রেজার পাইপ আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে দেন।
ড্রেজার বালু ব্যাবসায়ী মোশাররফ পারভেজ ফোনে সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওই মহাসড়ক তো গত দু’মাস পূর্বে খুড়া হয়েছে। এখন কেন আমার ড্রেজার মিশিন পাইপ পুড়বে। আসলে গতকাল সোমবার কুমিল্লা উত্তর জেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকারের সঙ্গে ছিলাম তাই খিপ্ত টিএনও আমার ড্রেজার ও পাইপ পুড়ে দিয়েছেন। যার মূল্য প্রায় ৬লাখ টাকা।
২২নং টনকি ইউপি’র চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন বলেন, ‘মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঙ্গলবার দুপুরে টনকি, বৈলাবাড়ী , চাপিতলা ও খাপুড়া গ্রামের ৪টি ড্রেজার মিশিন ও পাইপ পুড়িয়ে দিয়েছেন। কি করণে পুড়িয়ে দিয়েছেন জানা যায়নি’।
বাঙ্গরা বাজার থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, এ ব্যাপারে বাঙ্গরা বাজার থানায় মামলা পক্রিয়াধীন। আসামিদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।মুরাদনগর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের জানান, ড্রেজার মেশিন চালানো সরকারি কোন নিয়ম নেই। কোম্পানীগঞ্জ-নবীনগর আঞ্চলিক মহাসড়ক ক্ষতি করার অপরাধে ওই ড্রেজার মেশিন ও পাইপ পুড়িয়ে দিয়েছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: