মুরাদনগর সংবাদদাতাঃ কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলার একমাত্র সরকারি ডিআর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নির্মিত ছাত্রাবাসটি প্রতিষ্ঠানটির কোনো কাজে আসছে না। দুই যুগ আগে নির্মিত এ ছাত্রাবাস ভবনটি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের লেখা-পড়া বৃদ্ধি করার লক্ষে মূলক্যাম্পাসের বাহিরে স্কুলটির বড় খেলার মাঠের পাশে প্রায় ৬’শতক জমির উপর দু’তলা বিশিষ্ট ছাত্রাবাস ভবনটি নির্মান করে কর্তৃপক্ষ। ভবনটি এখন ব্যবহার না হওয়ায় বেহাল অবস্থায় ভূতুড়ে বাড়ীতে রোপান্তর হয়েছে।

জানা যায়, ১৯৯১ সালে উপজেলা সদরের প্রাণকেন্দ্রে মুরাদনগর ডিআর উচ্চ বিদ্যালয়টি পার্শ্ববর্তী একমাত্র খেলা মাঠের পাশে সরকারি অর্থায়নে প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা ব্যায়ে ছাত্রবাসটি নির্মাণ করা হয়। নির্মাানের পর থেকে ৫/৬ বছর কিছু শিক্ষাথী ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ছাত্রাবাসটি ব্যবহার করে। ছাত্রাবাসটি নির্মানের পর বেশ কয়েকবার সেটি রিপেয়ারিং করা হলেও ব্যবহার না করে পরিক্তেত করে রাখায় বর্তমানে সেটি ভূতুড়ে বাড়িতে রোপান্তরিত হয়েছে।

ইাম প্রকাশে অইচ্ছুক বিদ্যলয়ের এক ছাত্র জানায়, বিদ্যালয়ের প্রায় সকল শিক্ষকরা স্থানীয় ও কোচিং ব্যাণিজের কারনে শিক্ষকরা ছাত্রাবাসটিকে পরিক্তেত করে রেখেছে। ছাত্রবাসটি চালু করা গেলে আমাদের শিক্ষা গ্রহনে অনেক বেগবান হবে।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: শাহজাহান বলেন, বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের বাড়ী কাছা কাছি হওয়ায় ছাত্ররা ছাত্রাবাসে থাকতে চায়না। তাই ছাত্রাবাস ভবনটি পরিক্তেত রয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: