লিবিয়া প্রবাসী নওগাঁ জেলা সদরের দিপু হোসেন (২৭) নামের এক যুবককে ইটালী যাওয়ার প্রলোভন দিয়ে দেশে তার পরিবারের কাছে প্রাননাশের হুমকী দিয়ে অর্থ আদায়ের ঘটনায় মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লা ডিবি পুলিশ প্রযুক্তির সহায়তায় চান্দিনার দোল্লাই নবাবপুর এলাকা থেকে নাবিদ হাসান (২১) ও কামাল হোসেন (৩৮) নামের দু’জনকে আচক করেছে। এসময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় বিকাশের মাধ্যমে দেওয়া ৫০ হাজার টাকাও।

ডিবি পুলিশ সুত্রে জানা যায়,নওগাঁ জেলা সদরের শাহপুর গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হকের পুত্র দিপু হোসেন প্রায় ৮ বছর যাবৎ লিবিয়া প্রবাসী। গত ১৪ আগষ্ট ২০২১ ইং তারিখ রাত আনুমানিক ৮ টায় সে মোবাইল ফোনে পরিবারের সদস্যদের জানায়,ইয়াসিন মিয়া ও কামাল হোসেন নামের দু’বাংলাদেশীর সহায়তায় সে সাগর পথে ইচালী যাচ্ছে। পরবর্তীতে ওই একই রাত সাড়ে ১১ টায় আবারো পরিবারের কাছে মোবাইল ফোনে কান্নাকাটি করে জানান, উল্লেখিত দু’বাংলাদেশীকে ৩০ হাজার মার্কিন ডলার দিতে হবে। না দিলে সাগরে ফেলে দিবে। এসময় বাংলাদেশী পাঁচারকারীদ্বয় দিপুর পরিবারকে দু’ঘন্টা সময় বেধে দিয়ে ৩০ হাজার ডলারের সমপরিমান ২৫ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য একটি বিকাশ নাম্বার ০১৭৭৩৯৭৮৬১১ এবং নগদ একাউন্ট নাম্বার ০১৮৩৩৮০৭৩৪০ দেয়। দিপুর পরিবার এসময় আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়ে। পরবর্তীতে অপহরনকারীদের দেওয়া ০১৯৬০৮০৩৭০৩ এবং ০১৯৫৬৯১৪০৯০ এই দুটি বিকাশ নাম্বারে দিপুর পরিবারের সদস্যরা ১৬ আগষ্ট বিকেল ৫ টায় ৫০ হাজার টাকা পাঠায়। এরপর পরিবারের লোকজন ১৭ আগষ্ট নওগাঁ সদর থানায় একটি মামলা করে।

পুলিশ মামলার তদন্ত করে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার অপরাধীদের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে কুমিল্লা জেলা পুলিশের সহায়তা চায়। পরবর্তীতে কুমিল্লা ডিবি পুলিশের এসআই পরিমল চন্দ্র সাহার নেতৃত্বে একটি দল জেলার চান্দিনা উপজেলার দোল্লাই নবাবপুর থেকে মামলার এজাহার নামীয় আসামী চান্দিনার দোল্লাই আটচাইল মিয়াজী বাড়ির মৃত হীরন মিয়ার পুত্র নাবিদ হাসান ও বিকাশ এজেন্ট মৃত আবু তাহেরের পুত্র মোঃ কামাল হোসেনকে গ্রেফতার ও বিকাশে দেওয়া ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: