সফিকুল ইসলামঃ কুমিল্লায় হারিয়ে যাওয়া শিশুকে বাবার হাতে তুলে দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো ছাত্রলীগ নেতা নাছিমুল ইসলাম হেলাল। সন্ত্রাস, টেন্ডারবাজী আর নানা অপকর্মে যখন ছাত্রলীগকে দোষারোপ করা হয় তখন মানবিক হৃদয় জেগে উঠা অনন্য কাজের নজির গড়লেন ছাত্রলীগের এই নেতা।

সোমবার দুপুরে দেবিদ্বার উপজেলার কামাল হোসেনের কাছে তার হারিয়ে যাওয়া ছেলে সৈকত হোসেন নিলয়কে তুলে দেয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সদস্য সচিব নাছিমুল ইসলাম হেলাল।

পরিবারের সূতে্র জানা যায়, কুমিল্রার দেবিদ্বারের বড়শালঘর গ্রামের কামাল হোসেনের ১১বছরের ছেলে নিলয় নিকটস্থ প্রাথিমক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর ছাত্র। রবিবার পারিবারিক প্রয়োজনে নিলয়ের মা পারুল আক্তার চট্টগ্রাম আগ্রাবাদ তার বাবার বাসার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। ছেলের পরীক্ষার কথা ভেবে নিলয়কে বাবার কাছেই রেখে যান মা। দুপুর ১২টায় স্কুল থেকে ফিরে নিলয় জানতে পারে মা চট্টগ্রাম যাচ্ছে। মায়ের কাছে যাওয়ার উদ্দেশ্য বাড়ি থেকে বের হয় নিলয়। টিফিনের জমানো ৬০টাকা দিয়ে বাড়ি থেকে অনেক দূরে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগঞ্জ এলাকায় চলে আসে। এদিকে বাবা কামাল হোসেন ও নিকটাত্মীয়রা কোথাও খুজে পায় না। রাত নয়টায় দিকে দেবিদ্বারের ছাত্রলীগ নেতা শাহীন ফোন দিয়ে নিলয়ের পিতাকে একটি নাম্বার দেয় এবং জানায় তার ছেলে কুমিল্লা শহরের এক ছাত্রলীগ নেতার আশ্রয়ে আছে। পরে হেলালকে ফোন দিয়ে নিলয়ের অবস্থান নিশ্চিত হন পিতা কামাল হোসেন।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সদস্য সচিব নাছিমুল ইসলাম হেলাল জানায়, সুয়াগঞ্জ এলাকার কিছু লোক ছেলেটিকে পেয়ে তার ঠিকানা দেবিদ্বার জানতে পায়। সেখান থেকে ছাত্রলীগের এক কর্মী বিষয়টি ফোনে আমাকে জানালে আমি তার বিষয়ে খোজ নিতে উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউসার অনিক ভাইয়ের সহযোগিতা নেই। অনিক ভাই শাহীনের নাম্বার দিলে শাহীনের সাথে যোগাযোগ করে ছেলেটির পরিবারের সাথে কথা বলি। এরপর সুয়াগাজি থেকে নিলয়কে শহরে কান্দিরপাড় নিয়ে আসতে বলি। রাতে নিলয়কে নিয়ে আমরা আনন্দ আড্ডায় সময় কাটাই যেন সে ভয় না পায় এবং তার বাবার সাথে কথা বলাই।

হারিয়ে যাওয়া ছেলেকে খুজে পেয়ে বাবার কাছে ফিরিয়ে দেয়ার অনুভূতি সম্পর্কে হেলাল জানান, আমাদের প্রত্যেকের মানিবক বোধ আছে, সেবার মানসিকতা আছে। যদি আমরা ভালো কিছু করার ইচ্ছা করি তবে সেটা হয়ে যায়। ছাত্রলীগ সে কাজটাই করেছে। আমি শুধু একা নই, ছাত্রলীগের আরও কর্মীরা এই ভালো কাজটির সাথে জড়িত।

সন্তানকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত পিতা কামাল হোসেন বলেন, আমরা আশা ছেড়ে দিয়েছিলাম। ভাবিনি নিলয়কে ফিরে পাবো। আল্লাহ আমাদের সন্তানকে ফিরিয়ে দিয়েছেন ভাইদের মাধ্যমে।

উল্লেখ্য ছাত্রলীগ নেতা নাছিমুল ইসলাম হেলাল কুমিল্লা শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সার্ভে ইন্সটিটিউটের সাবেক ভিপি সাইফুল ইসলামের ছোট ভাই। সাইফুল ইসলাম ২০১৫সালের ১১এ্রপ্রিল কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন শেষে নগরীর নজরুল এ্যভিনিউতে কতিপয় সন্ত্রাসীর ছুরিকাঘাতে নির্মমভাবে নিহত হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: