ডেস্ক রিপোর্টঃ কক্সবাজার থেকে অভিনব কায়দায় পেটের ভিতরে করে ইয়াবা পাচারের সময় ৫ মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে কুমিল্লা ডিবি পুলিশ।

রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় কুমিল্লার পদুয়ার বাজাার বিশ্বরোড এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার হালসা গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২), কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী থানার ধনারচর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২০) একই জেলার চুলিয়ারচর গ্রামের নরুরুজ্জামানের ছেলে মোঃসুলতান (১৯),রাজিবপুর থানার চরসাজৈ গ্রামের ওসমান গনির ছেলে শরিফুল ইসলাম (২২),একই উপজেলার চররাজিবপুর গ্রামের আবু বকর ছিদ্দিকের ছেলে ফারহজান রাজ (২২)।

ডিবি পুুিলশ জানায় ,পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে পুলিশ চেকপোষ্টের মাধ্যমে বিভিন্ন যানবাহন তল্লাশী কালে চট্রগ্রাম থেকে ঢাকা অভিমুখে একটি কালো রংয়ের এক্স নোহা মাইক্রো পুলিশের তল্লাশী লক্ষ্য করে রাস্তার মধ্যে রেখে গাড়ি থেকে নেমে কৌশলে পালানোর চেষ্টা করলে ডিবি পুলিশ গাড়িটি ঘেরাও করে ৫ যুবককে আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে প্রথমে অস্বীকার করলে ডিবি পুলিশ পাশের একটি ক্লিনিকে নিয়ে এক্সরে করে পেটের মধ্যে ইয়াবার নজির পায়।

পরে তাদের পেটের ভিতর বড় বড় ক্যাপসুলের মত ইয়াবা সম্বুলিত ২৬০ টি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়।উদ্ধারকৃত প্যাকেটে ১৩ হাজার পিস ইয়াবা ছিল বলে জানায় ডিবি পুলিশ।

কুমিল্লা ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক ইকতিয়ার উদ্দিন বাদী হয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে আটককৃতদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন।