মারুফ আহমেদঃ দলকে ভালোবাসতে হলে দলের সুখে দুখে পাশে থেকে কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ২১বছর পর যদি আওয়ামীলীগ ঘুরে দাড়াতে পারে, তাহলে বিএনপি ও আগামীতে ঘুরে দাড়াবে। পদ ছাড়া রাজনীতি করার আগ্রহ থাকে না, দীর্ঘদিন ধরে দলীয় পদ না থাকায় সাংগঠনিক দূর্বলতা দেখা যাচ্ছে না। তাই দলের সাংগঠনিক দূর্বলতা কাটিয়ে দলকে সুসংগঠিত করে কাজ করতে হবে। তাহলে আন্দোলন সংগ্রাম করে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব। কুমিল্লা টাউন হলে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব মনিরুল হক সাক্কু এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন সেল্ফী আর ব্যানারে রাজনীতি করা য়ায় না, রাজনীতি করতে হলে দলীয় নির্দেশ মোতাবেক আন্দোলন করতে হবে। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন আপনারা দৈর্য ধরুন ২০২০ সালের মধ্যে আপনারা সুখবর পাবেন। কুমিল্লা দক্ষিন জেলা ও মহানগর কমিটি করতে হলে আমার অনুসারীদের রেখেই কমিটি করতে হবে। সরকারের কাছে বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশ্বর্ত মুক্তির আহবান জানান তিনি।

>>আরো পড়ুনঃ  সদর দঃ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম সারওয়ার ও সাধারণ সম্পাদক হাজী রহিম

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে ও আব্দুর রউফ চৌধুরী ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নূরে আলম ছিদ্দিক,কুমিল্লা কলেজের সাবেক জিএস জসিম উদ্দিন,হাজী অব্দুস সালাম মাসুদ,নুরুল ইসলাম,আবুল হোসেন,রায়হান রহমান হেলেন,এডভোকেট কাইমুল হক রিংকু,সাইফুল বিন জলিল,কাউন্সিলর শাহ আলম মজুমদার,মতিউর রহমান কামাল, যুবদল সভাপতি ইউসুফ মোল্লা টিপু,সাধারন সম্পাদক হাজী আনোয়ার উল হক,বিএনপি নেতা সাজ্জাদুল কবির,সাদেরা আলাউদ্দিন,সাকিনা আক্তার,সেচ্ছাসেবকদল নেতা মুজাহিদ চৌধুরী, হাজী এনামুল হক সহ বিএনপি,যুবদল,স্বেচ্ছাসেবকদল,ছাত্রদলসহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ দলীয় নেতাকর্মী রা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথিকে ক্রেষ্ট দিয়ে শুভেচ্ছা জানান হাফেজ ইকবাল হোসেন নোমান।