কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলা থেকে ফেরদৌস সোহাগ (৩০) নামে সেনাবাহিনীর এক ভুয়া মেজরকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে সেনাবাহিনীর ভুয়া আইডি কার্ডসহ প্রতারণার বিভিন্ন কাজগপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-১১ কুমিল্লার কোম্পানি অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব এসব তথ্য জানান। গ্রেপ্তার হওয়া সোহাগ চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার নওহাটা গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে।

তিনি জানান, সদর দক্ষিণ উপজেলার কোটবাড়ি বিশ্বরোড এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ওই ভুয়া সেনা কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত সোহাগ নিজেকে কখনো মেজর, কখনো লে.কর্নেল, কখনো কর্নেল পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করতো। সে সেনাবাহিনী, বিজিবিসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন লোকজনের নিকট থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল। এমনকি প্রতারণাকালে সে বিভিন্ন স্থানে নিজের ভিন্ন ভিন্ন পরিচয় দিত।

তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত সোহাগ কখনো নিজেকে তাসফিক, কখনো সোহাগ নামে পরিচয় দিত। এছাড়া তার নিকট থেকে একটি ভুয়া সেনাবাহিনীর কর্মকর্তার আইডি কার্ড উদ্ধার করা হয়েছে। যেখানে সেনা ইউনিফর্মে তার ছবি এবং মেজর বিজয় চৌধুরী লেখা রয়েছে। এছাড়াও চাকরি দেওয়ার নাম করে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে নেওয়া তাদের বিভিন্ন সার্টিফিকেট, প্রশংসাপত্র, জন্ম নিবন্ধন সনদ, চারিত্রিক সনদপত্র ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন সময় মোবাইলফোনে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে টাকা নেওয়ার অডিও রেকর্ডিংও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: