ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লায় ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত তিন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ মে) কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলাটি করেন নিহতের স্বামী।

এতে চিকিৎসক ডাক্তার তাইফুর, সীমান্ত ও আশিককে আসামি করা হয়। পুলিশ জানায়, পেটে ব্যথা হওয়ায় স্ত্রী খুকু মণিকে নগরীর মুন হাসপাতালে ভর্তি করেন অটোরিকশা চালক খোকন সাহা।

স্বজনদের দাবি, হাসপাতালে নেয়ার পরই কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া খুকুকে ইনজেকশন দেয় চিকিৎসক তাইফুর। এরপরই তার মৃত্যু হয়।

এসময় বিল পরিশোধের জন্য চাপ দেয় চিকিৎসক সীমান্ত ও আশিক। এ ঘটনার পর হাসপাতালে পুলিশের সাথে রোগির আত্মীয়-স্বজনের বাকবিতন্ডা ঘটে। এ সময় রোগির আত্মীয়-স্বজনকে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ স্বজনদের।

রোগির আত্মীয়-স্বজনদের সাথে পুলিশের ধাক্কাধাক্কির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে কুমিল্লা জুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

তবে পুলিশ বলছে, রোগী মৃত্যুর ঘটনায় হাসপাতালে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।