দাউদকান্দি পৌরসভার মেয়র নাঈম ইউসুফ সেইনকে তার দল আওয়ামীলীগ থেকে পুনরায় মনোনয়ন দিলে ফের মেয়র প্রার্থী হবেন। ২০১৫ সালে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর বদলে দিয়েছেন দাউদকান্দি পৌরসভাটিকে । তিনি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন, সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। করোনাকালীন সময়ে কর্মহীনদের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন। এছাড়া পৌরসভার প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন হাত ধোয়ার সামগ্রী। পৌর সদরের মোড়ে মোড়ে উন্মোক্তস্থানে করেছেন হাত ধোয়ার ব্যবস্থা। প্রায় অর্ধ লাখের অধিক জনসংখ্যা অধ্যুষিত দাউদকান্দি পৌরসভাকে আধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে মেয়র নাইম ইউসুফ সেইনের নেয়া পদক্ষেপে সন্তুষ্ট হয়ে সরকার এবং দাতা সংস্থা বিপুল পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে এ পৌরসভাকে।

গত পাঁচ বছরে শতকোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেছেন তিনি। সরেজমিনে দেখাযায়, পৌরসভার প্রধান সড়ক প্রসস্তকরণসহ নর্দমা ও ফুটপাত নির্মাণ, বিদ্যুৎ অপচয় রোধ ও সাশ্রয়ের জন্য সোলার প্যানেলে সড়কবাতি স্থাপন, ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প, অভ্যন্তরীণ রাস্তা, কবরস্থান নির্মাণসহ পৌরসভার প্রতিটি পাড়া মহল্লায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে।

মেয়র নাঈম ইউসুফ সেইন বলেন, আমি উন্নয়ন কাজে বিশ্বাসী। কি কি কাজ করেছি তা পৌরবাসীর সামনে দৃশ্যমান। আধুনিক মডেল পৌরসভা গড়ে তোলার স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করেছি। আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হবেন কিনা জানতে চাইলে, নাইম ইউসুফ সেইন বলেন, এটি দলীয় সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করে। দল চাইলে আমি প্রার্থী হব । আমি কখনো দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাইনি, আর যাবোও না কোন দিন। আমি শতভাগ আশাবাদী দলীয় মনোনয়ন পাবো এবং আবারো পৌরবাসী বিপুল ভোটে আমাকে বিজয়ী করবেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: