মোঃ জুয়েল রানাঃ সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় কুমিল্লা তিতাস উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তরুণ ছাত্রলীগ নেতা মোঃ ফরহাদ আহমেদ ফকির।

ফরহাদ মাত্র ২৭ বছর বয়সে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে অনুষ্ঠিত হওয়া পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনিই সর্বকনিষ্ঠ নির্বাচিত উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান!

ফরহাদ ১৯৯৩ সালের ১লা জানুয়ারি কুমিল্লা তিতাস উপজেলার গাজীপুর গ্রামে একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তার বাবার মোঃ জহিরুল ইসলাম ফকির ও মাতা মোসাঃ রুজিনা আক্তার। তিনি পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে দ্বিতীয়।

ফরহাদ হোমনা ডিগ্রী কলেজে অধ্যয়নরত আছেন। স্কুলজীবন থেকেই তিনি জড়িত হন ছাত্র রাজনীতিতে। রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামের মাঝেও কখনও পিছপা হননি। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে লালন করে ছাত্র জীবন থেকে বর্তমান পেক্ষাপটে রাজনীতির সাথে সক্রিয় ভাবে জড়িত রয়েছেন। নির্বাচনের সময় কঠোর পরিশ্রম এবং জামায়াত বিএনপি সরকারের আমলে কঠিন সময়েও তিনি দলের হয়ে কাজ করেছেন।

তিনি প্রথমে তিতাস উপজেলার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পান এবং ন্যায়, নিষ্ঠার সাথে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করায় পরে তাকে উপজেলার সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক নির্বাচিত করেন।

বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কুমিল্লা উত্তর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এই ছাত্রলীগ নেতা শুধু জেলা নয়, কেন্দ্রীয় রাজনীতির সাথে জড়িয়ে রেখেছেন নিজেকে।

ভাইস-চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ ফকির বলেন, আমি অল্পবয়সে রাজনীতিতে এসেছি এবং সামাজিক অঙ্গনে সততা দক্ষতা দিয়ে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। আর এ কারণে সকল বয়সী মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা অর্জন করে আজ জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছি। আশা করছি, জনগণের মাঝে এটি ধরে রাখতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমি সব সময় অসহায় মানুষের পাশে আছি এবং থাকবো। আর তারই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে উপজেলাবাসী সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করছি।