জে.এইচ বাবুঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার এলাকায় স্ত্রীর পরোকিয়া প্রেমিকের গায়ে পেট্টোল দিয়ে আগুন দেয়ার ঘটনায় মৃত্যুবরণ করলো প্রেমিক জহিরুল ইসলাম (৩০)। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজেন বার্ণ ইউনিটে বুধবার বিকেল ৫ টায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়। এদিকে আটককৃত মোসলেম উদ্দিন আগুন দেয়ার ঘটনা স্বীকার করেছে আদালতে।

উল্লেখ্য, জেলার দাউদকান্দি উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামে মোঃ রোশন আলীল পুত্র মোঃ জহিরুল ইসলাম (৩৫) আদর্শ সদর উপজেলাধীন সৈয়দপুর গ্রামের অপর ট্রাক ড্রাইভার মোসলেম উদ্দিন (৫৫) এর স্ত্রীর সাথে পরোকীয়া সম্পর্ক ঘরে উঠে। এতে সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় মোসলেম উদ্দিন কৌশলে জহিরকে ডেকে নিমসার ফিলিং ষ্টেশনের পাশে গ্রামীন হোটেলের ছাদে নিয়ে জহিরের শরীরে পেট্টোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। জহির চিৎকারে উপস্থিত লোকজন পানি দিয়ে আগুন নিভায়। এদিকে মোসলেম উদ্দিন পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন তাঁকে আটক করে দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীতে খবর দেয়।

>>আরো পড়ুনঃ  কুমিল্লায় ৫ হাজার ৪ শত পিস ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আহত জহিরকে উদ্ধার করে প্রথমে কাবিলা ইর্ষ্টান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, পরবর্তীতে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। রাতে জহিরের অবস্থা অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ডাক্তার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজেন বার্ণ ইউনিটে বুধবার বিকেল ৫ টায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর এস.আই কামাল হোসেন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আগুনের ঘটনায় বুড়িচং থানায় পূর্বেই মামলা দায়ের হয়েছে। এখন নতুন করে ধারা সংযোজন করা হবে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের নিকট হস্থান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। গ্রেফতারকৃত আসামী মোসলেম উদ্দিন আগুন দেয়ার ঘটনা স্বীকার করেছে আদালতে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ