ময়নামতি পূজা মন্ডপে দুবৃর্ত্তদের হামলা ॥ আটক-২

মারুফ আহমেদঃ কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের বাগিলারা গ্রামের নাহা বাড়ির পূজো মন্ডপে একদল দুবৃর্ত্ত হানা দেয়। এসময় তারা মন্ডপের ডেকোরেশনের পর্দা ছিড়ে মলমূত্র ফেলে বৈদ্যূতিক জেনারেটরটি নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। মন্ডপের লোকজন টের পেয়ে এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার রাতে এঘটনাটি ঘটে। পরে পুলিশ এঘটনায় জড়িত সন্দেহে শরীফ (১৭) ও সবুজ (১৬) নামের দু’যুবককে আটক করে।

স্থানীয় ও পুলিশ সুত্র জানায়, বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের গোমতী নদীর তীরবর্তী বাগিলারা গ্রামের নাহা বাড়িতে আসন্ন দূর্গা পূজা উপলক্ষে মন্ডপের সাজ-স্জ্জার কাজ চলছিল। এঅবস্থায় গত ০৯ অক্টোবর মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ১০ টায় কয়েক জন যুবক মন্ডপে এসে হামলা চালায়। হামলাকারীরা মন্ডপের ডেকোরেশনের পর্দা দাড়ালো বস্তু দিয়ে ছিড়ে ফেলে এবং মন্ডপের গেটে মলমূল ছুড়ে দেয়। এছাড়াও হামলাকারীরা মন্ডপের বৈদ্যূতিক আলোর কাজে ব্যবহৃত জেনারেটরটিও নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। একপর্য়ায়ে মন্ডপের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে স্থানীয় দেবপুর ফাঁড়ি পুলিশের এসআই শাহিন কাদির ও এসআই ইকতিয়ারের নেতৃত্বে একটি দল এসে মন্ডপের লোকজনদের থেকে বিস্তারিত অবগত হয়ে জড়িত সন্দেহে শরীফ ও সবুজকে আটক করে। তারা উভয়েই বাগিলারা গ্রামের বাসিন্দা।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একটি সুত্র জানায়, মন্ডপ পরিচালনাকারী নাহা সম্প্রদায়ের সাথে স্থানীয় কৃষ্ণ পালের বিরোধের জের এই হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। তবে মন্ডপে থাকা নারায়ণ পাল নামের এক ব্যাক্তি সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি সত্য না। তবে তিনি আরো বলেন,আমরা দীর্ঘদিন ধরে এখানে পূজা মন্ডম পরিচালনা করে আসছি। তবে প্রতিবারই একটি চক্র নানাভাবে মন্ডপে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করে আসছিল। এবারো বিশৃঙ্খলা ঘটলো।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ