কুমিল্লার লালমাই উপজেলায় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে ক্রিকেট খেলায় বাধা দেয়ায় হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের হদকরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় প্রতিপক্ষের হামলায় ৫জন গুরুতর আহত হয়েছে। এদিকে এ হামলার ঘটনায় ১২জনের নাম উল্লেখ করে লালমাই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আহত সাফায়েত হোসেন।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, ঘটনার দিন অভিযোগকারীর বাড়ির সামনে ক্রিকেট খেলতে আসে প্রতিপক্ষরা। এসময় বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে তাদেরকে ক্রিকেট খেলতে বারণ করা হয়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। পরে ওইদিন সন্ধ্যায় হামলাকারীরা জড়ো হয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অভিযোগকারীর বাড়িতে এলোপাথাড়ি হামলা চালায়। এসময় হামলাকারীরা পিটিয়ে সাফায়েত (৪৬), মরিয়মের নেছা (৫০), কাজল বেগম (৩৮), বাবলু (১৫) কে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। আহতদের চিৎকারে এসে উদ্ধার করে লাকসাম সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। এছাড়াও হামলাকারীরা কাজল বেগমের স্বর্ণের চেইন ও সাফায়েত হোসেনের একটি মোবাইল ফোনসহ প্রায় অর্ধলক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আহত সাফায়েত হোসেন একই গ্রামের ইলিয়াছ, ইয়াকুব, হারেস, সাইফুল ইসলাম, ফকিরা, আবুল কাশেম, সোলেমান, মহিন উদ্দিন, ইমাম হোসেন, আবু মোতালেব, শুক্কুর আলী, আজিম এর বিরুদ্ধে লালমাই থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে লালমাই থানার এসআই আরিফ বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার তদন্ত চলছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: