কুমিল্লায় বাড়ছে ডেঙ্গুর প্রকোপ, হাসপাতালে রোগীর চাপ

কুমিল্লায় বাড়ছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। সেইসঙ্গে জেলার হাসপাতালগুলোতে বেড়েছে রোগীর চাপ। শুধু কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২৭ রোগী। পাশাপাশি বেসরকারি ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে রোগীর চাপ বেড়েছে। অনেকে উপজেলা কিংবা বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে উন্নতি না দেখলে ছুটছেন কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, মেডিসিন বিভাগে রোগীর ভিড়। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৯ জন। বর্তমানে নারী ও পুরুষ ওয়ার্ডে ২৭ ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছেন। গতকাল ২৮ রোগী ভর্তি ছিলেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত দুই সপ্তাহে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে কুমেকে ভর্তি হয়েছেন ৩৫৩ রোগী। সাত দিন আগে রোগীর সংখ্যা ছিল ২৬ জন। বাকিরা গত কয়েকদিনে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে কিছু রোগী কুমিল্লার বাইরে থেকে আসা। কুমিল্লার মধ্যে বরুড়া উপজেলার রোগীর সংখ্যা বেশি।

বরুড়া উপজেলার বাসিন্দা রাবেয়া আক্তার বলেন, ‘ছেলে কুমিল্লার বাইরে চাকরি করতো। অসুস্থ হয়ে বাড়ি এসেছে। পরে তাকে নিয়ে আসলাম হাসপাতালে। পরীক্ষা করে ডেঙ্গু ধরা পড়ে। এখন চিকিৎসা চলছে।’

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. মহিউদ্দিন বলেন, ‘ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। আমাদের এখানে পর্যাপ্ত কিট আছে। জ্বর হলেই যেন পরীক্ষা করে নেন সবাই। আর ডেঙ্গু চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত আছি আমরা। হাসপাতালে ডেঙ্গু পরীক্ষা করা হয়। আছে ডেঙ্গু কর্নার। চিকিৎসাসেবার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা আছে।’

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসেন বলেন, ‘এখনও কুমিল্লার অবস্থা ভালো। আমরা জেলার হাসপাতালগুলোর মতো উপজেলার হাসপাতাল ও প্রাইভেট ক্লিনিক সমিতির সঙ্গে আলোচনা করেছি। কীভাবে প্রতিরোধ করা যায়, সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে আমরা সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছি। মেডিসিন ও যাবতীয় ব্যবস্থা আছে।’

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  

ফেসবুকে আমরাঃ