মো. জাকির হোসেনঃ কুমিল্লার বুড়িচং থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ভারতীয় সীমান্তবর্তী পাঁচোড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯ লাখ ভারতীয় মুদ্রা (রূপি) সহ নিলুফা বেগম (৪৫) নামে এক মহিলাকে আটক করেছে। এ ঘটনায় পলাতক আরো ২ জনসহ ৩ জানের নামে বুড়িচং থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

মামলার বিবরণে জানা যায়, বুড়িচং থানা পুলিশের এ.এস.আই মোঃ সজিব হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের কুমিল্লা-বাগড়া সড়কের পাঁচোড়া হিন্দুরী ব্রিজ এলাকায় রাস্তায় চেকপোষ্ট দিয়ে অভিযান পরিচালনাকালে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টায় সন্দেহভাজন এক মহিলাকে আটক করে। পরে বিষয়টি বুড়িচং থানা অফিসার ইনচার্জ মনোজ কুমার দে’কে অবহিত করলে তিনি এস.আই রাজীব চন্দ্র কর ও নারী কনস্টেবল লিপি আক্তারকে ঘটনাস্থলে প্রেরণ করে। রাত সাড়ে ১০ টায় পুলিশ নারী কনস্টেবলের মাধ্যমে আটককৃত মহিলার দেহে তল্লাসী চালিয়ে বিশেষ কায়দায় রাখা ৩ বান্ডেল ভারতীয় মুদ্রা উদ্ধার করে। পরে উদ্ধারকৃত বান্ডেল খুলে প্রতি বান্ডালে ১শ’৫০টি করে ৪শ’৫০টি ২ হাজার রূপির নোট মোট ৯ লাখ রূপি পাওয়া যায়। এসময় পুলিশ ধৃত নিলুফা আক্তারকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। সে রাজাপুর ইউনিয়নের পাঁচোড়া গ্রামের খোরশেদ আলমের স্ত্রী।

পুলিশ আটককৃত আসামী ও নিলুফা বেগমের সহযোগী আরো দুই জনের নামসহ মোট তিন জনের বিরুদ্ধে ভারতীয় মুদ্রা অবৈধভাবে নিজ হেফাজতে বহন করার অপরাধে বিশেষ ক্ষমতা আইন ১৯৭৪ এর ২৫-বি(১)/২৫-ডি ধারায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ আটককৃত অসামীকে গতকাল কুমিল্লা আদালতে প্রেরণ করেছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: