কুমিল্লার লাকসাম পূর্ব ইউনিয়নে জনৈক যুবলীগ নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাকসাম থানার ২ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। বুধবার (২২ জুলাই) রাতে লাকসাম পূর্ব ইউনিয়নের নরপাটি বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে লাকসাম থানা পুলিশ।

জানা যায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে বুধবার সন্ধ্যায় লাকসাম পূর্ব ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আব্দুল বারেক ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক রায়হান খাঁন সোহেলের কর্মী-সমর্থকরা স্থানীয় যুবলীগ নেতা সেলিমের উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যান লাকসাম থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সাজেদুল ইসলাম মোল্লা। এ ঘটনায় থমথমে পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়ায় তারা ওই এলাকায় অবস্থান করেন।

এসময় হামলাকারীরা পুলিশের উপরও হামলা করে। এতে উপ-পরিদর্শক সাজেদুল ইসলাম মোল্লা ও কনস্টেবল স্বপন মিয়া আহত হন। আহত সাজেদুল ইসলাম মোল্লা ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে এবং আহত স্বপন মিয়া লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে লাকসাম থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, লাকসাম পূর্ব ইউনিয়নের নরপাটি গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে মিজানুর রহমান, আব্দুল বারেকের ছেলে মহিন উদ্দিন, আব্দুস সোবহানের ছেলে কামাল হোসেন, সফিকুর রহমানের ছেলে জহিরুল ইসলাম ও আলী আশ্রাফের ছেলে আব্দুল কাদের।

এ বিষয়ে লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নিজাম উদ্দিন বলেন, ‘পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: